এন্ড্রয়েড এর স্বাদ এখন আপনার উইন্ডোজ পিসিতে উপভোগ করুন (এন্ড্রয়েড সংস্করণঃ ৪.০.৪)

মোবাইল ও ট্যাবলেট পিসিতে ব্যবহিত জনপ্রিয় অপারেটিং সিস্টেম গুগলের এন্ড্রয়েড আপনার উইন্ডোজ পিসিতে খুব সহজেই ব্যবহার করা যাবে। যারা এন্ড্রয়েড চালিত মোবাইল ফোন বা ট্যাবলেট পিসি গুলো ব্যবহার করে থাকেন তারা জানেন আসলে এন্ড্রয়েড আসলে দারুন একটা অপারেটিং সিস্টেম (বিশেষ করে আমার প্রিয়)। অনেকেই আছেন যারা এখন পর্যন্ত এন্ড্রয়েড এর নাম শুনেছেন তবে ব্যবহার করতে পারেন নাই। কারন সবার সমর্থ নাই এই ধরনের স্মার্ট ফোন বাব ট্যাবলেট  কেনার তাই আমি আপনাদের (তাদের) জন্য নিয়ে এলাম এন্ড্রয়েড উইন্ডোজ এর চালানোর সহজ পদ্ধতি। এটা পদ্ধতিতে দুধের স্বাদ ঘলে মেটানো যাবে :) আসল এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম চালিত মোবাইল বা ট্যাবলেট ব্যবহার করার স্বাদ-ই আলাদা :D

এন্ড্রয়েড ব্যবহার করার জন্য যা যা প্রয়োজনঃ

  • উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম (পিসি)
  • ভার্চুয়াল বক্স (ডাউনলোড)
  • যেকোনো একটি এন্ড্রয়েড রোম (ডাউনলোড)

উপরের সকল ফাইল সংরক্ষণ করা হলে। আমারা সব প্রথমে ভার্চুয়াল বক্স ইন্সটল করবো। ভার্চুয়াল বক্স ইন্সটল করা জন্য সেই রকম কিছু করতে হবে না তাই স্ক্রিনশট দেয়ার প্রয়োজন মনে করলাম না ;)

ভার্চুয়াল বক্স সেটাপ করার নিয়মঃ

যেহেতু আমরা এই ভার্চুয়াল বক্স দিয়ে এন্ড্রয়েড ব্যবহার করবো তাই আমাদের সেই ভাবে সেই কনফিগারেশন এ ভার্চুয়াল পিসি তৈরি করতে হবে। ভার্চুয়াল বক্স সেটাপ সম্পুর্ন হলে ডেক্সটপ  ভার্চুয়াল বক্স এর সর্টকার্ট আইকন এর উপরে ক্লিক করে ওপেন করুন। তাহলে নিচের ছবির মত আসবে। এখন আমাদের নতুন ভার্চুয়াল পিসি তৈরি করার জন্য নিচের চিহ্নিত (New বাটন) স্থানে ক্লিক করবো।

এবার একবার নেক্সট বাটনে ক্লিক করতে হবে তাহলে নিচের ছবির মত আসবে সেখানে ছবিতে দেখানো অনুযায়ী একটা ভার্চুয়াল পিসির অপারেটিং সিস্টেম তৈরি করতে হবে।

Name: যা ইচ্ছা তাই দিন

Operating System: Linux ব্যবহার করুন।

Version: Linux 2.6 ব্যবহার করুন।

ফরম টি সঠিক ভাবে পূরন করে পরবর্তি ধাপে যাবার জন্য নেক্সট (Next) বাটনে ক্লিক করুন।

এবার আপনার ভার্চুয়াল পিসিতে আপনার মেমরি (র‍্যাম) এর কতটুকু অংশ শেয়ার (দিতে) চান তা নির্বাচন করুন। তবে এন্ড্রয়েড চালানোর জন্য আপনাকে সর্বনিম্ন ৫১২ মেগাবাইট শেয়ার (দিতে) করতে হবে। যাদের পিসিতে তে র‍্যাম বেশি তারা একটু বেশিই দিতে পারেন। যেমনঃ আমি ১জিবি শেয়ার করলাম। কারন বেশি র‍্যাম দিলে বেশি ফাস্ট ও ভালো সুবিধা পাওয়া যায়।

র‍্যাম শেয়ার করা শেষ হয়ে গেলে এবার আমাদের প্রয়োজন হবে একটি ভার্চুয়াল হার্ডডিস্ক (ড্রাইভ) এর। কারন আমি যদি এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম কে আপনার ভার্চুয়াল পিসিতে ইন্সটল করে রাখতে চান তাহলে অবশ্যই আপনার জন্য একটি ভার্চুয়াল হার্ডডিস্ক (ড্রাইভ) ড্রাইভ এর প্রয়োজন হবে। র‍্যাম তৈরি শেষের পরে আমরা দুইবার নেক্সট (Next) বাটনে ক্লিক করবো। এরপরে নতুন একটা উইন্ডো খুলবে সেখানে VDI (VirtualBox Disk Image) নির্বাচন করে নেক্সট (Next) বাটনে ক্লিক করবো, এর পরে Dynamically allocated নির্বাচন করে আবার নেক্সট (Next) বাটনে ক্লিক করবো। তার পরে ভার্চুয়াল ডিস্ক এর সাইজ কত বড় হওয়া প্রয়োজন তা নির্ধারন করুন। আমারা যেহেতু এখানে এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করবো তাই বেশি বড় হার্ডডিস্ক এর প্রয়োজন হবে না তবে ২.৫ জিবি এর কম দিবেন না, বেশি দিলে সমস্যা নাই। (তবে ভার্চুয়াল পিসিতে বেশি ব্যবহার করলে আপনার হার্ড ডিস্ক এও বেশি যায়গা দখল করবো)

ডিস্ক তৈরি (যায়গা নির্ধারন) করা হয়ে গেলে নেক্সট (Next) বাটনে ক্লিক করুন। তার পরে ভার্চুয়াল হার্ডডিস্ক তৈরি সম্পন্ন করার জন্য ক্রিয়েট (Create) বাটনে ক্লিক করুন। তাহলেই তৈরি হয়ে যাবে একটি ভার্চুয়াল পিসি যে পিসিতে লিনাক্স ২.৬ সমর্থন করে এবং যথেষ্ট মেমোরি (র‍্যাম) ও হার্ডডিস্ক সেই ভার্চুয়াল পিসিতে যুক্ত হয়ে থাকে।

এর পর আমাদের তৈরি ভার্চুয়াল পিসিতে রান (চালু) করবো। চালু করার জন্য আমারা ভার্চুয়াল বক্স এর লিস্ট আইটেম থেকে আমাদের তৈরি ভার্চুয়াল পিসি নির্বাচন করে স্টার্ট বাটনে ক্লিক করে দিন।

এবার আমারা First Run Wizard নামের একটি উইন্ডো খুলেছে তা দেখতে পাবো আমারা তা থেকে আবারো নেক্সট (Next) বাটনে ক্লিক করুন। নিচের ছবির মত আসলে আপনার ডাউনলোড করা এন্ড্রয়েড রোম (ISO ফাইল) টি নির্বাচন করুন। এর পর আবার নেক্সট (Next) বাটনে ক্লিক করুন  তার পর স্টার্ট (Start) বাটনে ক্লিক করুন।

এর পর আমারা দেখতে পাবো নিচের ছবির মত এন্ড্রয়েড চালু করার পদ্ধতি চলে এসেছে। এবার আপনি চাইলে এন্ড্রয়েড ইন্সটল করা ছাড়াই চালু করতে পারবেন অথবা আপনার ভার্চুয়াল পিসিতে ইন্সটল ও করতে পারবেন :) আমি এখন ইন্সটল ছাড়াই চালু করার পদ্ধতি দেখানোর জন্য দ্বিতীয় (Live CD – VESA mode) টি নির্বাচন করলাম।

ব্যাস এবার কিছু হাবিঝাবি লেখা এসে দেখবেন আপনার স্ক্রিন এ মধ্যে এন্ড্রয়েড এর বুট লোগো। এর তার পরে এন্ড্রয়েড ইন্সটল (সাময়িক সময়ের জন্য) ইন্সটল করে নিন এবং উপভোগ করুন এন্ড্রয়েড এর স্বাদ আপনার নিজের কম্পিউটারে।

কিছু স্ক্রিনশট আপনাদের জন্যঃ

আশা করি আপনারা আজ থেকে দুধের স্বাধ ঘলে মেটানোর চেস্টা করবেন আমার রি টিউটোরিয়াল এর সাহায্যে, আর সেই সাথে মজা করবেন ভার্চুয়াল এন্ড্রয়েড এর সাথে।

সাথেই থাকুন নতুন টিউটোরিয়াল এর জন্য এবং আমাদের এই পোস্ট গুলো আপনার বন্ধুদের সকলের মাঝে শেয়ার করুন।

– ধন্যবাদ!